মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

গ্রাম আদালত

মোনাখালী ইউনিয়ন পরিষদে প্রতি সপ্তাহের রবিবার  সকাল ১০ ঘটিকার সময় গ্রাম আদালত বসে। গ্রাম আদালতে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইউনিয়ন পরিষদের  সদস্য .সংরক্ষিত মহিলা সদস্যা ও এলাকার গন্য মান্য  ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত থাকেন।

গ্রাম আদালত আইন দ্বারা গঠিত একটি আদালত। একটি ইউনিয়ন পরিষদের আওতায় সংঘটিত ছোট ছোট দেওয়ানী ও ফৌজদারী বিরোধ নিষ্পত্তির জন্য ইউনিয়ন পরিষদে যে আদালত গঠন করা হয় তাকে গ্রাম আদালত বলে।

 

গ্রাম আদালতের লক্ষ্য ও উর্দ্দেশ্যঃ

 

  ১.সল্প সময়ে, অল্প খরচে স্থনীয়ভাবে ছোট ছোট বিরোধ দ্রুত নিষ্পত্তি করা।

  ২. দরিদ্র, নারী, সুবিধাবঞ্চিত জনগোষ্ঠীকে সামাজিক নিরাপত্তা ও বিচার প্রাপ্তির সুযোগ নিশ্চিত করা।

  ৩.স্থানীয় বিরোধ নিরসন।

  ৪. উচ্চ আদালতের চাপ কমানো।

  ৫. সামাজিক ন্যায্যতা ও সুশাসন সৃষ্টি।   

 

গ্রাম আদালতের গঠনঃ

 

পাঁচ জন সদস্য নিয়ে গ্রাম আদালত গঠন করা হয়। তারা হচ্ছেন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, আবেদনকারী পক্ষের ২ জন সদস্য(১জন ইউপি সদস্য ও ১জন গণ্যমান্য ব্যক্তি) এবং প্রতিবাদী পক্ষের ২ জন সদস্য(১জন ইউপি সদস্য ও ১জন গণ্যমান্য ব্যক্তি)।

গ্রাম আদালতের এখতিয়ারঃ

 ২০০৬ সালের  ১৯ নং আইনে গ্রাম আদালত সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। ২০০৬ সালের আইন অনুযায়ী ইউনিয়নের মধ্যে সংঘটিত ২৫,০০০/- (পঁচিশ হাজার) টাকা মূল্যমানের মামলা গ্রাম আদালতে নেয়া যেত। 

২০১৩ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর গ্রাম আদালত (সংশোধন) আইন,২০১৩ অনুযায়ী ইউনিয়নের মধ্যে সংঘটিত ৭৫,০০০/- (পঁচাত্তর হাজার) টাকা মূল্য মানের  ছোট ছোট দেওয়ানী ও ফৌজদারী মামলা নেয়া যায়।

ছবি



Share with :

Facebook Twitter